Breaking

জেনে নিন ৭ টি সবচেয়ে বড় স্মার্টফোন ভুল যা আপনি করতে পারেন।

স্মার্টফোনগুলি আধুনিক জীবনের একটি অবিচ্ছেদ্য অংশ হয়ে উঠেছে কারণ তারা একাধিক কাজ সম্পাদন করতে অভ্যস্ত। আপনাকে সকালে ঘুম থেকে ওঠা থেকে শুরু করে বন্ধু, পরিবার এবং সহকর্মীদের সাথে সংযুক্ত রাখা থেকে এমনকি আপনার মূল্যবান স্মৃতি সঞ্চয় করা পর্যন্ত, এই মোবাইল ডিভাইসগুলি সবই করে। ব্যবহারকারীরা এই ছোট্ট 'লাইফ-চেঞ্জার' ডিভাইসটিকে যতটা সম্ভব মসৃণভাবে চালিয়ে যেতে চান তাতে সন্দেহ নেই। লক্ষ্য অর্জনের জন্য ব্যবহারকারীদের কিছু দৈনন্দিন অভ্যাস জেনে এবং এড়িয়ে চলে শুরু করা উচিত যা তাদের ফোনের জীবনকালকে প্রভাবিত করে। এখানে আমরা স্মার্টফোনের সবচেয়ে সাধারণ এবং সবচেয়ে বড় ভুলের বিষয়ে আলোচনা করব যা আপনি করছেন।
১) ভুল চার্জার ব্যবহার করা:
অনেক ব্যবহারকারীর একটি ভুল ধারণা রয়েছে যে সমস্ত চার্জার একই। তারা মনে করে যে কোনও চার্জার ঠিক ততক্ষণ কাজ করবে যতক্ষণ একটি তারের সংযোগকারী তাদের ফোনে ফিট করে। তবে সঠিক চার্জার থাকা জরুরি। সস্তা চার্জার একটি বড় নো-না, এগুলি কেবল আগুন এবং শর্ট সার্কিটের ঝুঁকিই তৈরি করেনা বরং স্বল্প সময়ের পাশাপাশি দীর্ঘমেয়াদে আপনার স্মার্টফোনের জীবনকালকেও ক্ষতি করতে পারে। সর্বদা বিশ্বস্ত ব্র্যান্ড থেকে চার্জার কিনুন তাদের নিরাপত্তা এবং সামঞ্জস্যের নির্দেশিকা পরীক্ষা করে।
২) অফিসিয়াল গুগল প্লে-স্টোর ব্যতীত অন্য উৎস থেকে অ্যাপগুলি ডাউনলোড করা:
কিছু ব্যবহারকারী অ্যাপের জন্য অন্যান্য উৎসগুলি অন্বেষণ করার প্রবণতা রাখে যখন তারা সেগুলিকে Google Play Store এ খুঁজে পায় না। অনানুষ্ঠানিক উৎস এবং তৃতীয় পক্ষের অ্যাপ স্টোরগুলি সুপারিশ করা হয় না কারণ এই উৎসগুলি থেকে অ্যাপগুলি ডাউনলোড করা তাদের ডিভাইসগুলিকে ম্যালওয়্যার এবং দূষিত অ্যাপগুলির কাছে প্রকাশ করতে পারে৷ এই ক্ষতিকারক অ্যাপগুলি ভাইরাস এবং স্পাইওয়্যার দ্বারা ডিভাইসগুলিকে সংক্রামিত করতে পারে যা ব্যবহারকারীদের ব্যক্তিগত তথ্য, পাসওয়ার্ড এবং এমনকি ব্যাঙ্কিং বিবরণ চুরি করতে পারে। উপরন্তু, এই ক্ষতিকারক অ্যাপগুলি সাইবার অপরাধীদের আপনার ফোনের ক্যামেরা এবং মাইক্রোফোন অ্যাক্সেস করার অনুমতি দিতে পারে। অফিসিয়াল অ্যাপ স্টোর থেকে অ্যাপ ডাউনলোড করা হল সবচেয়ে ভাল বিকল্প, কারণ এই অ্যাপগুলি তালিকাভুক্ত হওয়ার আগে একটি কঠোর স্ক্রীনিং প্রক্রিয়ার মধ্য দিয়ে যায়।
৩) কোন Android OS এবং নিরাপত্তা আপডেট ডাউনলোড করা নেই:
মোবাইল ব্র্যান্ডগুলি নিয়মিত মোবাইল ওএস (অ্যান্ড্রয়েড) এর জন্য সফ্টওয়্যার শেয়ার করার পাশাপাশি নিরাপত্তা আপডেট রাখে। যদিও এগুলোর মধ্যে কিছু গুরুত্বপূর্ণ কারণ এগুলি আপনার ডিভাইসে নতুন বৈশিষ্ট্য এবং ডিজাইন উপাদান নিয়ে আসে, অন্যগুলি হল নিরাপত্তা আপডেট যা ফোনকে ক্ষতিকারক অ্যাপ এবং অন্যান্য অনুরূপ বিপদ থেকে রক্ষা করে। আপনার স্মার্টফোনকে সমস্যামুক্ত রাখতে এই আপডেটগুলি ডাউনলোড করা গুরুত্বপূর্ণ৷
৪) আপনার অ্যান্ড্রয়েড ফোনে পুরানো অ্যাপ ব্যবহার করা:
কিছু ব্যবহারকারী তাদের বিজ্ঞপ্তিগুলি অপছন্দ করতে পারে যে নির্দিষ্ট অ্যাপগুলির জন্য একটি নতুন সফ্টওয়্যার আপডেট উপলব্ধ। যাইহোক, এইগুলি অপরিহার্য বাধা যা ডিভাইসটিকে মসৃণ এবং নিরাপদে চালাতে সাহায্য করে। এই আপডেটগুলি শুধুমাত্র ব্যবহারকারীর অভিজ্ঞতার উন্নতিতে ফোকাস করে না বরং নিরাপত্তা প্যাচগুলিও অন্তর্ভুক্ত করে যা নতুন আবিষ্কৃত দুর্বলতাগুলিকে মোকাবেলা করে৷ এই আপডেটগুলি খুবই গুরুত্বপূর্ণ এবং এগুলিকে উপেক্ষা করা আপনার ডিভাইসগুলিকে ম্যালওয়্যার আক্রমণে উন্মুক্ত করতে পারে৷ তাছাড়া, এই আপডেটগুলি নির্দিষ্ট কিছু বাগও ঠিক করে যা আপনার হ্যান্ডসেটের কার্যকারিতা নষ্ট করতে পারে বা এমনকি ধীরে ধীরে কাজ করতে পারে। ব্যবহারকারীদের নিশ্চিত করা উচিত যে তারা যত তাড়াতাড়ি সম্ভব আপডেটটি ডাউনলোড এবং ইনস্টল করেছে যত তাড়াতাড়ি তারা এটি সম্পর্কে একটি বিজ্ঞপ্তি পাবে।
৫) পাবলিক ওয়াই-ফাই নেটওয়ার্ক ব্যবহার করা:
সার্বজনীন Wi-Fi নেটওয়ার্কগুলি সস্তা এবং অ্যাক্সেস করা সহজ, তবে এই নেটওয়ার্কগুলি একটি বড় নিরাপত্তা ঝুঁকি হতে পারে। হ্যাকার এবং খারাপ অভিনেতা যারা এই নেটওয়ার্কগুলির সাথে সংযুক্ত তারা সহজেই পাবলিক ওয়াই-ফাই নেটওয়ার্কগুলিতে পাঠানো তথ্য দেখতে পারে৷ এটি হ্যাকারদের ব্যবহারকারীর তথ্য চুরি করতে এবং দূরবর্তীভাবে তাদের ডিভাইস অ্যাক্সেস করার অনুমতি দেবে। এমন পরিস্থিতিতে, যেখানে আপনাকে একটি সার্বজনীন Wi-Fi নেটওয়ার্ক ব্যবহার করতে হবে, ইন্টারনেটে সংযোগ করার সময় আপনি একটি VPN ব্যবহার করছেন তা নিশ্চিত করুন৷ ভার্চুয়াল প্রাইভেট নেটওয়ার্ক বা ভিপিএন হল পাবলিক নেটওয়ার্কেও নিরাপদে ওয়েবসাইটগুলির সাথে সংযোগ করার একটি সহজ সমাধান৷ যাইহোক, এই ধরনের পরিস্থিতিতে মোবাইল ডেটা ব্যবহার করা ভাল।
৬) একটি পরিবর্তিত ত্বক ব্যবহার করতে ডিভাইসটিকে জেলব্রেক করা বা রুট করা:
আপনার iOS বা অ্যান্ড্রয়েড ডিভাইসগুলি যথাক্রমে জেলব্রেকিং এবং রুট করা বেআইনি নয়। যাইহোক, তাদের স্টক স্কিনে চলমান ডিভাইসগুলিতে আরও সুরক্ষা রয়েছে যা ব্যবহারকারীদের ফোনের অপারেটিং সিস্টেমের কিছু গুরুত্বপূর্ণ অংশ অ্যাক্সেস করতে বাধা দেয়। মোড ডিভাইসগুলিতে কাস্টম রম ব্যবহার করা ব্যবহারকারীদের লুকানো সিস্টেম সেটিংসে অ্যাক্সেস দিতে পারে যা তাদের ফোনের সাথে আরও অনেক কিছু করতে দেয়, তবে এটি আপনার ডিভাইসটিকে আরও বেশি নিরাপত্তা ঝুঁকিতে ফেলতে পারে। আপনার ডিভাইস রুট বা জেলব্রেক করার সিদ্ধান্ত নেওয়ার আগে কিছু গবেষণা করা এবং গাইডের মাধ্যমে যাওয়া অপরিহার্য, বিশেষ করে প্রথম টাইমারদের জন্য।
৭) কেস বা ব্যাক কভার ব্যবহার না করা:
ব্যাক কভার বা ফোন কেস আপনার ডিভাইসগুলিকে ক্ষতিগ্রস্ত হওয়া থেকে রক্ষা করতে কার্যকর হতে পারে। ব্যবহারকারীদের তাদের ডিভাইসের জন্য একটি নতুন কভার খোঁজার সময় স্টাইলের চেয়ে কেসের গুণমানের দিকে বেশি মনোযোগ দেওয়া উচিত। এই কভারগুলির উদ্দেশ্য শুধুমাত্র ফোনের আবেদন বাড়ানোই নয় বরং এটি পড়ে যাওয়া এবং অন্যান্য দুর্ঘটনার ফলে সৃষ্ট ক্ষয়ক্ষতি কাটিয়ে ওঠা থেকে দক্ষতার সাথে রক্ষা করা। সিলিকন ফোনের কেসগুলি অন্যান্য উপকরণের তুলনায় বেশি টেকসই এবং বেশিরভাগ স্মার্টফোন ব্র্যান্ডের বক্সে এই ধরনের কভার থাকে।

কোন মন্তব্য নেই:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

Please do not enter any spam link in the comment box.